যৌনকর্মের সময় দমবন্ধে ইসরায়েলি তরুণীর মৃত্যু!

0
156

ভারতের মুম্বাইয়ের হোটেলে গতবছর যে ইসরায়েলি তরুণীর মৃত্যু হয়েছিল, যৌনকর্মের সময় দমবন্ধ হওয়া তার কারণ বলে পুলিশের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। ওই তরুণী তার প্রেমিককে নিয়ে ভারতে বেড়াতে এসেছিলেন। ঘটনার পর ইয়াকব নামের ওই প্রেমিকের বিরুদ্ধে তদন্তে নামে মুম্বাইয়ের পুলিশ। পরে ফরেনসিক প্রতিবেদনে ২০ বছর বয়সী তরুণীর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হয় তারা।

মঙ্গলবার এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে জানায়, ওরিরন ইয়াকবের বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান প্যানেল কোডের সেকশন অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য হত্যা, কিন্তু হত্যার উদ্দেশ্য ছিল না এমন ধারাতে অভিযুক্ত করা হয়েছে। তবে যৌন সংসর্গকালে তরুণী দমবন্ধ হয়ে মারা যান বলে ফরেনসিক প্রতিবেদনে উঠে আসে।

গত বছরের মার্চে দক্ষিণ মুম্বাইয়ের একটি হোটেলে এই ঘটনা ঘটে। ইয়াকব তার প্রেমিকাকে নিয়ে পর্যটন ভিসায় এক মাসের জন্য তারা ভারতে এসেছিলেন। তারা তখন কোলাবার এলাকার একটি হোটেলে উঠেছিলেন।

এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, যৌন সংসর্গের সময় ইয়াকব তার প্রেমিকার গলায় হাত দিয়ে জোরে চাপ দেয়ার ফলে শ্বাসরোধ হয়ে মারা যান ওই তরুণী।

তিনি জানান, ইয়াকব হোটেল কর্তৃপক্ষকে তার প্রেমিকার নিথর দেহ পড়ে থাকার কথা জানান। হোটেলের কর্মকর্তারা পুলিশকে ঘটনাটি জানায়। এরপর পুলিশ ওই তরুণীকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে। ওই সময় মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা না যাওয়ায় একটি দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর মামলা করা হয়। পরে ওই তরুণীর পরিবার তার লাশ ইসরায়েলে নিয়ে যায়।

পুলিশ কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে এনডিটিভি বলছে, সম্প্রতি পুলিশের হাতে ফরেনসিক প্রতিবেদন এসে পৌঁছেছে। তাতে বলা হয়েছে, ওই তরুণী দমবন্ধ হয়ে মারা গেছেন। মুম্বাই পুলিশ ইসরায়েলি নাগরিক ইয়াকবের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। যদি তিনি বর্তমানে ইসরায়েলে রয়েছেন।